; charset=UTF-8" /> gnewsbd.net  » জাতীয় » হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিম কাউন্সিলরের পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত
Date & Time -  

হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিম কাউন্সিলরের পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত

ইরফান সেলিমকে কাউন্সিলরের পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

অনলাইন ডেস্কঃ- নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমেদ খান ও তার স্ত্রীর উপর হামলার অভিযোগে মামলা দায়েরসহ একাধিক কারণ উল্লেখ করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরের পদ থেকে ইরফান সেলিমকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য জানানো হয়।

ইরফান সেলিম ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকার ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছিলেন। এছাড়া তিনি ঢাকা ৭ নম্বর আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে।

ফৌজদারি মামলা ছাড়াও প্রজ্ঞাপনে তাকে বরখাস্ত করার যেসব কারণ উল্লেখ করা হয়েছে সেগুলো হচ্ছে: বিদেশি মদ পানের কারণে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এক বছরের কারাদণ্ড দেয়া ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অবৈধ ওয়াকিটকি রাখা ও ব্যবহারের দায়ে ৬ মাসের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হওয়া এবং অবৈধ অস্ত্র ও মাদক রাখার আরো কিছু মামলা দায়েরের কার্যক্রম চলমান থাকা।

কর্মকর্তারা বলছেন, সিটি কর্পোরেশনের কোন কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে নৈতিক স্খলন-জনিত অপরাধ ও অসদাচরণের অভিযোগ পেলে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করার আইন থাকায় সে অনুযায়ী এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

এর আগে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, মামলার কারণে ইরফান সেলিমকে কাউন্সিলরের পদ থেকে সাময়িক বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী জাহিদুল ইসলামকে হত্যাচেষ্টা মামলায় আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রেফতার দেখিয়েছে পুলিশ। তাদেরকে মুখ্য-মহানগর হাকিম আদালতে তোলার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তাদেরকে হাজির করা হয়নি।

এর আগে হত্যাচেষ্টা মামলার আরেক আসামী এবং ইরফান সেলিমের ব্যক্তিগত সহকারী এবি সিদ্দিক দিপুকে টাঙ্গাইল থেকে গ্রেফতার করে পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। মঙ্গলবার তাকে সিএমএম আদালতে হাজিরের পর সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়।

রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী আবু আব্দুল্লাহ জানান, আদালত শুনানি শেষে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

এর আগে দুপুরে তেজগাঁও থানা কমপ্লেক্সে ভিকটিম রেসপন্স ও হটলাইন নম্বর উদ্বোধন করার পর ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম জানান, ইরফান সেলিমের বিরুদ্ধে যে মামলাটি হয়েছে সেটির তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ প্রভাবমুক্ত থাকবে।

তিনি বলেন, প্রয়োজন হলে মামলাটি ডিবিতে পাঠানো হবে।

হত্যাচেষ্টা মামলার এজাহারে বেআইনিভাবে পথরোধ, সরকারি কর্মকর্তাকে মারধর, জখম ও প্রাণনাশের হুমকি এবং হত্যা চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, রবিবার সন্ধ্যার দিকে সস্ত্রীক মোটরসাইকেলে করে বাড়ি ফিরছিলেন নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমেদ খান। সেসময় একটি গাড়ির সঙ্গে তার মোটরসাইকেলটির ধাক্কা লাগার পর গাড়িটি থেকে অভিযুক্তরা নেমে এসে তাকে মারধর করে। নিজের পরিচয় দেয়ার পর তাকে মারধর অব্যাহত রাখে।

পরে সোমবার পুরনো ঢাকায় ইরফান সেলিমের বাড়িতে ছয় ঘণ্টা ধরে অভিযান চালায় পুলিশ। সেসময় বিদেশি মদ রাখার অপরাধে ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষীকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। সূত্র: বিবিসি বাংলা

 

 এই রিপোর্ট পড়েছেন  160 - জন
 রিপোর্ট »মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবার , ২০২০. সময়-১১:৫১ PM | বাংলা- 12 Kartrik 1427
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!

Leave a Reply

5 + 3 =